ডাস্টবিনে সরকারি হাসপাতালের শত শত প্যাকেট স্যালাইন

পটুয়াখালীর দুমকিতে সোমবার (23 May) দুপুরে আয়শা এই স্যালাইনগুলো বাইরে বিক্রি করতে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা দেখে ফেললে ডাস্টবিনে ফেলে দিয়ে সরে পড়েন তিনি।

পরে সেখান থেকে শত শত প্যাকেট স্যালাইন কুড়িয়ে নিয়ে যায় সাধারণ মানুষ। সংগৃহীত স্যালাইনের মেয়াদ রয়েছে ২০২৫ সাল পর্যন্ত।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ৩১ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের শত শত প্যাকেট খাবার স্যালাইন ডাস্টবিনে ফেলে দেয় নার্সিং ইনচার্জ আয়শা মারজান।

এ ঘটনায় নার্স আয়শা মারজানকে শোকজ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: আর বেঁচে নেই ‘ভাদাইমা’খ্যাত কৌতুক অভিনেতা আহসান আলী

দুমকি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মীর শহিদুল ইসলাম শাহিন জানান, ইতোমধ্যে নার্স আয়শা মারজানকে শোকজ করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

তবে আয়শা মারজান এ অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, তিনি এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। তাকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে ফাঁসানো হয়েছে।

আরও পড়ুন 👇

👉 পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে কালো জিনিস কোনটি? দেখে নিন 

👉 ফেসবুক মার্কেটিং কি? ফেসবুক মার্কেটিং আল্টিমেট গাইডলাইন।

👉 ফেসবুক থেকে আয় ২০২২: ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়?

Leave a Comment