পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে কালো জিনিস কোনটি? দেখে নিন

এই ছবিটা দেখুন…

এখন আপনার ফোনে যে ছবিটা দেখতে পাচ্ছেন তা দেখে ফটোশপ করা বলে মনে হচ্ছে, না? জানলে অবাক হয়ে যাবেন, এটি ফটোশপ নয়। লোক টি সত্যিই কোনো এক পদার্থ ধরে আছেন। এই পদার্থের নাম ভেন্টা ব্ল্যাক।

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এমনই একটি পদার্থ আবিষ্কার করেছেন যা কিনা ৯৯.৯৬% আলোকে শোষণ করতে সক্ষম হয়েছে। একে আপনি পৃথিবীর সবচেয়ে কালো বা অন্ধকারতম পদার্থ বলতে পারেন।

আমরা জানি, যখন কোনো বস্তুতে আলো পড়ে তখন বস্তু সেই আলোকে প্রতিফলন করে। এইভাবেই আমরা কোনো বস্তুকে চোখে দেখতে পারি। তবে ভেন্টা ব্ল্যাকের পক্ষে এই প্রতিফলনটা আর হয়ে ওঠেনা। যেমনটা আগে বলেছি এটি ৯৯.৯৬% আলোকেই শোষণ করে নেয়। এর জন্যেই আমরা জিনিসটাকে এরকম পিচ ব্ল্যাক এবং 2D দেখেছি।

বলে রাখি, এটি পুরোপুরি কার্বন ন্যানোটিউব দিয়ে বানানো হয়, CVD প্রসেস ব্যবহার করে। আপনি জানলে অবাক হয়ে যাবেন, শুধু ভিসিবাল স্পেকট্রাম নয়, পদার্থটি অতিবেগুনী এবং অবলোহিত রশ্মিকে আটকাতে সক্ষম। একে আপনি অনেকটা ব্ল্যাক হোলের মতো ভাবতে পারেন। সম্ভবত তার থেকেই অনুপ্রেণিত হয়ে বানানো হয়েছে।

সম্প্রীতি পৃথিবীর মধ্যে জনপ্রিয় গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি, BMW এই পদার্থকে তাঁদের BMW X6 মডেলে ব্যবহার করেছেন। ইতিমধ্যে তাঁরা পৃথিবীর সবচেয়ে কালো গাড়ি হিসাবে সবার মনে জায়গা করে নিয়েছেন।

তাঁরা খুব শীঘ্রই নিজেদের আরো ভেন্টা ব্ল্যাক গাড়ি সিরিজ মার্কেটে লঞ্চ করতে চলেছে। আর্টিকেল টি ভালো লাগলে একটি কমেন্ট করে আরো ভালো ভালো আর্টিকেল লেখার জন্য অনুপ্রাণিত করবেন।

Leave a Comment